শিগ্রই বাজারে আসছে রয়াল এনফিল্ড হান্টার ৩৫০

ভারতের বাজারে খুব শীঘ্রই নতুন বাইক নিয়ে আসতে চলেছে রয়াল এনফিল্ড। নতুন এই বাইকের নাম রয়াল এনফিল্ড হান্টার ৩৫০, এই বাইকটি রয়াল এনফিল্ডের ৩৫০ সিসি বিভাগের।

আগস্টের প্রথম সপ্তাহেই হয়তো এই মোটরসাইকেলটি লঞ্চ হতে পারে। এমনটাই জানা যাচ্ছে। এই বাইকটি রয়াল এনফিল্ডের সব থেকে সস্তা বাইক হবে। এই বাইকটি কোম্পানির জে প্ল্যাটফর্মে ডিজাইন করা হয়েছে। Meteor ৩৫০ এবং নিও ক্ল্যাসিক মডেলগুলো এই এক প্ল্যাটফর্মে ডিজাইন করা হয়েছিল। রয়াল রয়াল এনফিল্ড হান্টার ৩৫০ সিসিতে ৩৪৯ এর একটি ইঞ্জিন থাকবে।

এই ইঞ্জিনের মাধ্যমে সর্বোচ্চ 20.2 bhp এবং 27Nm টর্ক পাওয়া যাবে। ডিজাইন কেমন হবে এই বাইকের? রেট্রো স্টাইলে লঞ্চ হতে চলেছে রয়াল এনফিল্ড হান্টার ৩৫০। পরীক্ষার সময় বেশ কয়েকবার এই বাইক রাস্তায় দেখা গিয়েছে।

সামনেই থাকছে একটা বৃহদাকারের বৃত্তকার হেডল্যাম্প । এর সঙ্গে রয়েছে ব্লুটুথের মাধ্যমে বাইককে কানেক্ট করার সুবিধা। তবে ট্রিপার নেভিগেশন আলাদা অ্যাকসেসরি হিসেবে ডাউনলোড করতে হবে। সিঙ্গেল পড ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার ব্যবহৃত হয়েছে এই বাইকে। Royal Enfield রয়াল এনফিল্ডের অন্যান্য বাইকের তুলনায় এই বাইকে ছোট দৈর্ঘ্যের exhaust ব্যবহার করা হবে। এই বাইকে থাকছে সিঙ্গেল পিস সিট।

স্পোর্টি রেট্রো লুকের সঙ্গে মিশিয়ে সিঙ্গেল সিট রাখা হয়েছে। এছাড়া, রাইডারের ফুট স্টেপ পিছন দিকে রয়েছে কিছুটা। এর ফলে রাইডারের স্পোটি স্ট্যান্স করতে সুবিধা হবে। নিত্যদিনের রাইডের জন্য খুবই আরামদায়ক হবে এই বাইক। ক্ল্যাসিক ৩৫০ এবং মিটিওর ৩৫০ এর থেকেও কম দামে এই বাইক বাজারে আসতে চলেছে। 1.5 লাখেরও কম টাকায় এই বাইকের বেস ভ্যারিয়েন্ট কেনা যাবে।

ভারতের বাজারে হন্ডা CB 350 RS এবং Jawa 42 এর সঙ্গে দারুন কম্পিটিশন হবে রয়াল এনফিল্ড হান্টার ৩৫০ এর। লঞ্চের পর রয়াল এনফিল্ড কোম্পানির সব থেকে সস্তা বাইক হবে এটি। বেস ভ্যারিয়েন্ট এর সামনের চাকায় থাকবে শুধু ডিস্ক ব্রেক। আর পিছনের চাকায় ড্রাম ব্রেক। কিন্তু হান্টার ৩৫০ এর টপ ভ্যারিয়েন্টগুলোতে দুটো চাকাতেই ডিস্ক ব্রেক থাকবে। ভারতের গাড়ির বাজারে এমনই ৩৫০ সিসি বিভাগে রয়াল এনফিল্ডের আধিপত্য রয়েছে।

এই বিভাগকে যেন পাখির চোখ করেছে রয়াল এনফিল্ড, এই বিভাগেই তাই একের পর এক বাইক নিয়ে আসছে তারা। যদিও চেন্নাইয়ের বাইল উৎপাদনকারী এই সংস্থা এখানেই থামতে চায় না। তারা আরও সস্তা বাইক এনে প্রতিযোগীদের কঠিন চাপে ফেলতে চায়।